ডিপ্লোমেটিক কোয়ার্টার: সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ফ্রন্টলাইন চিকিৎসকদের নায়ক হিসাবে প্রশংসা করেছেন

তথ্য ছড়িয়ে দিন

সময়ঃ ২৫ জুন , ২০২০

রিয়াদ: সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মোশি মঙ্গলবার করোনাভাইরাস (কোভিড -১৯) মহামারী রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আত্মত্যাগকারী ফ্রন্টলাইন চিকিৎসকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।
মহামারী চলাকালীন কর্তব্যরত অবস্থায় মারা যাওয়া চিকিৎসকদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মশি তাদের “সত্যিকারের বীর” বলে অভিহিত করেছিলেন।
সৌদি আরব জুড়ে হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোতে সেবা দেওয়ার সময় কমপক্ষে পাঁচজন বাংলাদেশী কোভিড -১৯ সম্পর্কিত কারনে মারা গেছেন।
রিয়াদের কিং সালমান হাসপাতালের পরামর্শক ডাঃ মোহাম্মদ শফিউল্লাহ ১৯ জুন মারা গেছেন।
কোভিড -১৯ থেকে রাজ্যের প্রথম বাংলাদেশী চিকিৎসক ৬২ বছর বয়সী অর্থোপেডিক সার্জন এবং সাধারন অনুশীলনকারী ডাঃ আফাক হোসেন, যিনি সাফা আল-মদিনা পলিক্লিনিকের রোগীদের ভাইরাসের সংক্রমণের পরে ৩১ শে মার্চ মদীনায় মারা গিয়েছিলেন।
১ জুন, ডঃ গোলাম মোস্তফা, যিনি মদিনাতেও ছিলেন, তিনি মারা যান। তিনি সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সাথে ৩৪ বছরেরও বেশি সময় ধরে কাজ করেছেন এবং চার মাস আগে অবসর নিয়েছিলেন। তিনি নিজের দেশে ফিরে যাওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন।
১৩ ই জুন, ডাঃ মোঃ আনোয়ার উল-হাসান রিয়াদে কোভিড-সংক্রান্ত কারনে মারা গেছেন। তিনি বাথার বদরুদ্দিন পলিক্লিনিকের জিপি হিসাবে কাজ করেছেন।
তার সহযোগী জিপি ডাঃ আবদুর রহিম ১৯ মে জেদ্দায় মারা যান, সেখানে তিনি বিনলাদেন পলিক্লিনিকে কাজ করেছিলেন।
আরও বেশ কয়েকজন বাংলাদেশী কিংডমের কোভিড -১৯-এর জন্য চিকিত্সা নিচ্ছেন এবং দু’জন বাংলাদেশী চিকিৎসকের স্ত্রীও রিয়াদের ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন।
মোশি বলেন, দূতাবাস চিকিত্সা সম্প্রদায়ের সাথে নিবিড় যোগাযোগ রাখছে যাতে তাদের সকল সম্ভাব্য সহায়তা প্রদান করা যায়।

এই নিবন্ধটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল সংবাদমাধ্যম আরব সংবাদ

আপনি এই ওয়েবসাইটের আরো আকর্ষণীয় খবর বা ভিডিও দেখতে চাইলে ক্লিক করুন এখানে আরব সংবাদ হোম


তথ্য ছড়িয়ে দিন